ডার্ক মোড
Thursday, 23 May 2024
ePaper   
Logo
রেলস্টেশনসহ কৌশলগত স্থানে বসছে আইপি ক্যামেরা

রেলস্টেশনসহ কৌশলগত স্থানে বসছে আইপি ক্যামেরা

নিজস্ব প্রতিবেদক

ট্রেনে নাশকতা প্রতিরোধে রেলস্টেশনসহ বিভিন্ন কৌশলগত স্থানে আইপি ক্যামেরা বসানোর কাজ চলছে, এক সপ্তাহের মধ্যে এ কাজ সম্পন্ন হবে বলে জানিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুন।

রোববার (২৪ ডিসেম্বর) রাতে রাজধানীর কাকরাইল চার্চে বড়দিন উপলক্ষ্যে গৃহীত নিরাপত্তা ব্যবস্থা পর্যবেক্ষণ শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

এক প্রশ্নের জবাবে আইজিপি বলেন, দুষ্কৃতকারী এবং নাশকতাকারীরা বিভিন্ন কর্মসূচির নামে নির্বাচনবিরোধী কার্যক্রম প্রকাশ্যে করতে পারছেনা। কারণ তাদের কর্মসূচিতে জনসমর্থন নেই। আমরা সাধারণ মানুষের সমর্থন নিয়ে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছি। সাধারণ মানুষ, রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, গোয়েন্দা সংস্থাসহ সব সংস্থা একসঙ্গে কাজ করছি।

আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সম্পূর্ণরূপে আমাদের নিয়ন্ত্রণে আছে। তারপরেও নাশকতামূলক ২-১টি ঘটনা ঘটছে। কিন্তু সাধারণ মানুষ নাশকতাকারীদের ধরে আমাদের হাতে দিচ্ছে। মানুষ আমাদের সহায়তা করছে।

তিনি বলেন, ট্রেনের নাশকতা প্রতিরোধে কম্পার্টমেন্টে সিসি ক্যামেরা ও বাইরে কৌশলগত স্থানে সিসি ক্যামেরা বসানো হচ্ছে। স্টেশনসহ বিভিন্নস্থানে আমরা আইপি ক্যামেরা স্থাপন করছি। এ কার্যক্রম শুরু হয়ে গিয়েছে। এক সপ্তাহের মধ্যে এ কার্যক্রম আমরা শেষ করতে চেষ্টা করব।

এছাড়া, রেলের স্থাপনাসহ, অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা রক্ষায় বিভিন্নস্থানে পুলিশসহ পুলিশকে সহায়তার জন্য আনসার বাহিনীকে নিয়োজিত করা হয়েছে। সম্প্রতি আরও প্রায় ৩ হাজার আনসার সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। নাশকতাকারী ও দুষ্কৃতকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমরা সবসময় প্রস্তুত আছি।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নির্বাচনকালীন সময়ে স্বাভাবিক পরিস্থিতি বজায় রাখার জন্য ইসির নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা কাজ করছি। যেখানে যে ঘটনা ঘটছে, আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। নির্বাচন নিয়ে দেশের পরিস্থিতি অবনতির চেষ্টা করলে বা কোথাও কেউ প্রতিপক্ষকে আক্রমণের চেষ্টা করলে তার বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এর আগে আইজিপি বলেন, সারাদেশে সকল গির্জাতে বড়দিন উপলক্ষ্যে অনুষ্ঠান আয়োজনে নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য পুলিশের সব ইউনিটকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বড়দিনের সব অনুষ্ঠানে তাদের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ করে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করছি। বড়দিনের সকল অনুষ্ঠান সুন্দরভাবে অনুষ্ঠিত করতে আমরা পাশে আছি।

মন্তব্য / থেকে প্রত্যুত্তর দিন