ডার্ক মোড
Thursday, 23 May 2024
ePaper   
Logo
সুন্দরগঞ্জে সরকারি সুবিধা পাইয়ে দেয়ার কথা বলে প্রতারণা

সুন্দরগঞ্জে সরকারি সুবিধা পাইয়ে দেয়ার কথা বলে প্রতারণা

সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে সরকারি সুবিধা পাইয়ে দেয়ার কথা বলে এক ইউপির সংরক্ষিত আসনের মহিলা সদস্যর ভাইয়ের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায়, উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের সংরক্ষিত আসনের মহিলা সদস্য রতনা বেগমের নাম ভাঙ্গিয়ে প্রতারণা করেন তার ভাই রঞ্জু মিয়া। তিনি পেশায় ব্যবসায়ী। তিনি সরকারি ভাতা ভিডব্লিউবি পাইয়ে দেয়ার কথা বলে ভুক্তভোগী সুধাংশু চন্দ্রের কাছে থেকে ৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। এদিকে টাকা নিয়ে দুই বছর পেরিয়ে গেলেও দেয়নি কোন প্রকার সুবিধার নাম। অভিযুক্ত রঞ্জু মিয়া বামনডাঙ্গার দেওডোবা গ্রামের মৃত মনসুর হাজীর ছেলে।

ভুক্তভোগী সুধাংশু চন্দ্র বলেন, ভোট হওয়ার ১ মাস পর মহিলা সদস্য রতনা বেগমের ভাই রঞ্জু ব্যাপারী আমার স্ত্রী প্রমিলা রানীর নামে একটি ভিডব্লিউবি (দুস্থ মাতা) সুবিধার কার্ড করে দেয়ার কথা বলে ৫ হাজার টাকা নেয়।কিন্তু দুই বছর পার হলেও আমাকে কার্ড বা টাকা ফেরত দেননি তিনি। এছাড়াও টাকা চাইলে তিনি বিভিন্ন টালবাহানা করে বিভিন্ন হুমকি -ধামকি দেন।

নামপ্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক লোক জানান, তারা দুই ভাই বোন জোগসাজসে এমন কাজ করেন। এছাড়াও বিভিন্ন ভাতা শিশু ভাতা, বয়স্ক ভাতা এবং প্রতিবন্ধী ভাতার নাম করে একাধিক ব্যক্তির নিকট থেকে টাকা নেন তারা।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত রঞ্জু মিয়া ঘটনা অস্বীকার করে বলেন, আমি ভাতা বা সরকারি সুবিধার নামে কোন টাকা নেইনি। আমি তার থেকে টাকা হাওলাত নিয়েছি।

এ ব্যাপারে বামনডাঙ্গা ইউনিয়নের সংরক্ষিত আসনের মহিলা সদস্য রতনা বেগমের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন, এই বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে আমি আমার ভাইয়ের সাথে কথা বলে জানাবো।

মন্তব্য / থেকে প্রত্যুত্তর দিন