ডার্ক মোড
Thursday, 23 May 2024
ePaper   
Logo
যুবদের ক্ষমতায়ন ও জাতীয় যুবনীতি ২০১৭ বাস্তবায়নে মৌলভীবাজারে এনজিও সমূহের ভূমিকা শীর্ষক মত বিনিময়

যুবদের ক্ষমতায়ন ও জাতীয় যুবনীতি ২০১৭ বাস্তবায়নে মৌলভীবাজারে এনজিও সমূহের ভূমিকা শীর্ষক মত বিনিময়

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

“যুবদের ক্ষমতায়ন ও জাতীয় যুবনীতি-২০১৭ বাস্তবায়নে এনজিও সমূহের ভূমিকা” শীর্ষক একটি মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। (২১ জানুয়ারী) রবিবার রূপান্তরের আয়োজনে আগারগাওস্থ এনজিও বিষয়ক ব্যুরো হল রুমে, অনুষ্ঠিত হয়। মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন এনজিও বিষয়ক ব্যুরোর মহা-পরিচালক শেখ মোঃ মনিরুজ্জামান।

বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব প্রদীপ কুমার মহোত্তম,জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক ও ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্ত, যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের পরিচালক প্রিয় সিন্ধু তালুকদার,সম্মানিত অতিথি ছিলেন সুইজারল্যান্ড দূতাবাসের হেড অফ কো-অপারেশন করিন হেন চোজপিগনানি। এনজিও বিষয়ক ব্যুরোর মহা-পরিচালক শেখ মোঃ মনিরুজ্জামান বলেন যুবদের ক্ষমতায়নের মূল সূত্র হলো নিজের অধিকার, দায়িত্ব ও কর্তব্য সম্পর্কে সচেতন হওয়া পাশাপাশি যুবদের ক্ষমতায়ন, অংশগ্রহণ ও চেতনায় সমৃদ্ধ কওে যুব অন্তর্ভুক্তির মাধ্যমে মূল উন্নয়ন ধারায় যুবদেও অংশ গ্রহণ বৃদ্ধি করতে হবে।

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক ও ভোরের কাগজের সম্পাদক শ্যামল দত্ত বলেন যুব পলিসি তৈরী ও পাঠ্য পুস্তুকে নতুন কার্যক্রম তৈরী করার সময় যুবদেরকে সম্পৃক্ত করতে হবে, এতে কওে তাদের শেখার আগ্রত বিকশিত হবে। তিনি আরো বলেন চাকুরীর ক্ষেত্রে যুবরা বিশেষ কওে প্রান্তিক যুবরা অনেক পিছিয়ে আছে। যুবদেরকে বাংলাদেশের ঐতিহ্য, সংস্কৃতির সাথে যুক্ত হওয়ার মাধ্যম তৈরী করতে হবে।

বিশেষ অতিথি পার্বত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব প্রদীপ কুমার মহোত্তম বলেন তরুণদের বেশী বেশী সামাজিক কাজে সম্পৃক্ত কারার ক্ষেত্রে উৎসাহিত করতে হবে। যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের পরিচালক প্রিয় সিন্ধু তালুকদার বলেন আইসিটি, সংস্কৃতি মন্ত্রনালয় ও যুব উন্নয়ন অধিদপ্তর একত্রে কাজ করলে যুবদেও চাকুরী ক্ষেত্রে সুযোগ সৃষ্টি হবে যাতে যুবরা ক্ষমতায়িত হবে। তিনি আরো বলে জাতীয় ও স্থানীয় পর্যায়ের তরুণ ফোরামের সাথে আন্ত: সম্পর্ক গড়ে তুললেই তরুণদেও অধিকার বাস্তবায়ন আরো সহজতর হবে। এনজিও বিষয়ক বুরে‌্যার পরিচালক তপন কুমার বিশ^াস বলেন বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তুলতে হলে তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে।

মত বিনিময় সভার সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সুইজারল্যান্ড দূতাবাসের হেড অফ কো-অপারেশন করিন হেন চোজপিগনানি বলেন বাংলাদেশ সরকারের মূল পরিকল্পনা হলো কেউ পিছিয়ে থাকবে না। সেই উদ্দেশ্য নিয়ে আস্থা প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে যে কোন ধর্ম, গোত্র ও সম্প্রদায়ের যুবরা এই প্রকল্পে য্ক্তু হতে পারবে। এ ছাড়া আস্থা প্রকল্প একজন যুবকে দায়িত্ববান নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে সাহায্য করবে।

মত বিনিময় সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন রূপান্তরের নির্বাহী পরিচালক রফিকুল ইসলাম খোকন। ডেমক্রেসি ওয়াচের নির্বাহী পরিচালক ওয়াজেদ ফিরোজ ও স্বাবলম্বী উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক স্বপন পালের পরিচালনায় মত বিনিময় সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। মতবিনিময় সভায় ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন রূপান্তরের নির্বাহী পরিচালক স্বপন কুমার গুহ। অনুষ্ঠানে স ুইজারল্যান্ড দূতাবাসের প্রোগ্রাম ম্যানেজার সাবিনা ইয়াসমিন লুবনা,বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে তরুণ জনপ্রতিনিধি, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, সরকারী কর্মকর্তা এবং আস্থা এ্যালায়েন্সের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। সুইজারল্যান্ডের আর্থিক সহায়তায় রূপান্তর, ডেমক্রেসি ওয়াচ, স্বাবলম্বী উন্নয়ন সংস্থা, আশিকা, তৃনমূল উন্নয়ন সংস্থা, গ্রাম উন্নয়ন সংস্থা বাংলাদেশের সাতটি বিভাগের ১৮টি জেলায় ১৪৭টি উপজেলায় আস্থা প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। 

মন্তব্য / থেকে প্রত্যুত্তর দিন