ডার্ক মোড
Thursday, 23 May 2024
ePaper   
Logo
মতলব উত্তরে সার্বজনীন পেনশনের বুথ ও সেবা কেন্দ্র চালু

মতলব উত্তরে সার্বজনীন পেনশনের বুথ ও সেবা কেন্দ্র চালু

মতলব উত্তর (চাঁদপুর) প্রতিনিধি

দেশের সর্বন্তরের জনগণকে সুবিধা দিতে সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা চালু করেছে সরকার। এ সেবার সাথে মতলব উত্তর উপজেলার জনগণকে সম্পৃক্ত করতে উপজেলা প্রশাসন সর্বজনীন পেনশন রেজিস্ট্রেশন বুথ ও সেবা কেন্দ্র চালু করেছে।

সূত্র জানায়, জাতীয় পরিচয়পত্র অনুযায়ী ১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সী সরকারী চাকুরীজীবী ব্যতিত সকল শ্রেণী পেশার বাংলাদেশি নাগরিক এই স্কিমে অংশ নিতে পারবে। দেশের মানুষের সামাজিক নিরাপত্তা দেবে সর্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা। সমাজের সব স্তরের মানুষকে সুবিধা দিতে এ পেনশন স্কিম চালু করেছে সরকার। মতলব উত্তরের সকল স্তরের জনগণকে সর্বজনীন পেনশন সর্ম্পকে ধারণা ও রেজিস্ট্রেশন দ্রুত সময়ে করার জন্য উপজেলা প্রশাসনের তরফ থেকে এ রেজিস্ট্রেশন বুথ ও সেবা কেন্দ্র চালু করা হয়েছে।

অনলাইন ও যে কোন মোবাইল ব্যাংকিং সেবার মাধ্যমে চাঁদা পরিশোধ করা যাবে। এদিকে নাম রেজিস্ট্রেশনের সময় আবেদনকারীর জাতীয় পরিচয়পত্র, একটি ব্যাংক একাউন্ট নম্বর, একটি সচল মোবাইল নম্বর ও নমিনীর জাতীয় পরিচয়পত্র বা জন্ম নিবন্ধন সনদপত্র সাথে আনতে হবে।

সর্বজনীন পেনশন চারটি স্কিমে চালু করা হয়েছে। স্কিমগুলো হলো প্রবাস, প্রগতি, সুরক্ষা ও সমতা। প্রবাস স্কীমে প্রবাসী বাংলাদেশিরা অর্ন্তভূক্ত হতে পারবে। এ স্কীমের সঞ্চয় চাঁদা ৫ হাজার, সাড়ে ৭ হাজার ও ১০ হাজার টাকা। প্রগতি স্কিম হল বেসরকারি কর্মচারী প্রতিষ্ঠানের জন্য, এ স্কিমের সঞ্চয় চাঁদা ২ হাজার, ৩ হাজার ও ৫ হাজার টাকা। সুরক্ষা স্কিম হল স্বকর্ম ও অ-প্রাতিষ্ঠানিক কর্মীদের জন্য, এ স্কিমের সঞ্চয় চাঁদা ১ হাজার, ২ হাজার, ৩ হাজার ও ৫ হাজার টাকা। সমতা স্কিম স্বল্প আয়ের ব্যক্তিদের জন্য, এ স্কিমের সঞ্চয় চাঁদা ১ হাজার টাকা।

তবে এ স্কিমের আওতাভূক্ত সকল রেজিস্ট্রেশনকারী ব্যক্তি ৫ শত করে চাঁদা দিবে আর বাকী ৫ শত টাকা সরকার দিবে। এ চারটি স্কিমে যে যার সুবিধামত চাঁদা রাখতে পারবে। ৬০ বছর বয়স হলে এ পেনশন সেবা ভোগ করতে পারবে উপকারভোগীরা।

উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল-এমরান খান জানান, উপজেলার ১টি পৌরসভা ও ১৪ টি ইউনিয়ন পরিষদের তথ্য সেবা কেন্দ্রে ছাড়াও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয় ও পৌর ও ইউনিয়ন ভূমি অফিসের কার্যালয়ে রেজিস্ট্রেশন বুথ ও সেবা কেন্দ্র চালু করা হয়েছে।

এছাড়া ব্যাংকেও এ সেবার বুথ খোলা হয়েছে। বিভিন্ন স্থানে সভা-সেমিনারের মাধ্যমে জনগণকে অবহিত ও উদ্বুদ্ধকরণ করা হচ্ছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার একি মিত্র চাকমা জানান, উপজেলার সকলকে সর্বজনীন পেনশনের আওতায় আনতে রেজিস্ট্রেশন বুথ ও সেবা কেন্দ্র চালু করা হয়েছে। উদ্বুদ্ধকরণে সভা সেমিনার অভ্যহত রয়েছে।

মন্তব্য / থেকে প্রত্যুত্তর দিন