ডার্ক মোড
Thursday, 13 June 2024
ePaper   
Logo
ছাগলনাইয়া ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার, সন্দেহভাজন দুই নারী আটক

ছাগলনাইয়া ব্যবসায়ীর মরদেহ উদ্ধার, সন্দেহভাজন দুই নারী আটক

ফেনী প্রতিনিধি

ছাগলনাইয়া পৌরসভার বাঁশপাড়া এলাকা থেকে ব্যবসায়ী করিম উল্যাহ ওরফে কালামিয়ার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার ২২ মে সকাল ৭ টার দিকে জমাদ্দার বাজারের উত্তর পাশে গাছ বাগান থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। করিম উল্যাহ কে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিক ধারণা পুলিশের। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুই নারীকে আটক করা হয়েছে। নিহত করিম উল্যাহ পৌরসভা ৬ নং ওয়ার্ডের বাঁশপাড়া বাসিন্দা। তিনি হাজী রাজা মিয়ার ছেলে।

নিহতের ছেলের বউ নুরের নেছা মিনু জানান, জমাদ্দার বাজারে তার শশুরের একটি কনফেকশনারি দোকান রয়েছে। মঙ্গলবার রাতে বাড়ি না ফেরায় রাত ১১ টার দিকে শশুরের নাম্বারে একাধিকার ফোন করেন তিনি। ফোন না ধরায় তার স্বামী আনোয়ার হোসেনকে দোকানে পাঠান। দোকান খোলা থাকলে ও কালামিয়া দোকানে ছিলেন না। অনেকক্ষণ অপেক্ষা করে আশে পাশে লোকজন না থাকায় দোকান বন্ধ করে বাড়ি ফেরেন আনোয়ার।

নিহতের বড় মেয়ে সাহেনা আক্তার জানান, সকালে এক ব্যক্তির মাধ্যমে খবর পান তার বাবার মরদেহ তাদের বাড়ির পাশে গাছ বাগানে পড়ে রয়েছে। তার ধারণা, তার বাবাকে দোকান থেকে ডেকে নিয়ে হত্যা করা হয়েছে। তবে তার বাবার সাথে কারও কোন বিরোধ ছিলনা বলে দাবি তার। তিনি এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের আটক এবং বিচার দাবি করেন।

ছাগলনাইয়া থানার ওসি হাসান ইমাম জানান, তিনি সকাল ৬ টার দিকে খবর পেয়ে এএসপি সার্কেলসহ ঘটনাস্থলে যান। সেখানে গিয়ে দেখেন গাছ বাগানে কালামিয়ার মরদেহ পড়েছিল। মরদেহে আঘাতে কোন চিহ্ন নেই। তার ধারণা, কালামিয়াকে অণ্ডকোষ চেপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ঘটনার স্থলের পাশের বাড়িতে ভাড়ায় থাকা দুই নারীকে আটক করেছে পুলিশ। ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ছাগলনাইয়া সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ ওয়ালী উল্যাহ জানান, ঘটনা তদন্ত করা হচ্ছে।মনে হচ্ছে, হত্যা হতে পারে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের সনাক্তের কাজ চলছে। রহস্য উদঘাটনে আটককৃত ২ নারী কে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

মন্তব্য / থেকে প্রত্যুত্তর দিন