ডার্ক মোড
Thursday, 13 June 2024
ePaper   
Logo
স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মসূচির পর সংঘর্ষ, শিক্ষার্থী নিহত

স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মসূচির পর সংঘর্ষ, শিক্ষার্থী নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক

স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মসূচি থেকে ফেরার পথে জাতীয় সংসদ ভবন এলাকায় দুই পক্ষের সংঘর্ষের এক পর্যায়ে ছুরিকাঘাতে মেহেদী হাসান (১৭) নামে এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। শনিবার (১৮ মে) সন্ধ্যা ৬টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মেহেদী হাসান বাড্ডার নুরের চালা এলাকার বাসিন্দা। তিনি এ বছর ভাটারার সোলমাইত হাইস্কুল থেকে এসএসসি পাস করেন। তার মা লিপি সিকদার ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ৩৯ নম্বর ওয়ার্ড শাখা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।
এ বিষয়ে নিহতের মামা মো. চয়ন ঢাকা পোস্টকে বলেন, আজ আমরা স্বেচ্ছাসেবক লীগের একটি র‍্যালিতে অংশগ্রহণ করি।

র‍্যালিটি রমনায় অবস্থিত ইঞ্জিনিয়ার ইনস্টিটিউশন থেকে ধানমন্ডি ৩২ নম্বর পর্যন্ত গিয়েছিল। র‍্যালি শেষে হেঁটে মানিক মিয়া অ্যাভিনিউ পার হচ্ছিলাম।

এ সময় পিকআপ ভ্যানে চড়ে র‍্যালিতে যোগ দেওয়া আরেক দল নেতাকর্মীর সঙ্গে আমাদের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে হাতাহাতিতে রূপ নেয়। এর মধ্যে কেউ একজন মেহেদির বুকে ছুরিকাঘাত করে। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে শেরেবাংলা নগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সজীব দে বলেন, একটি রাজনৈতিক দলের কর্মসূচি শেষে দুই পক্ষের মধ্যে গণ্ডগোল হয়। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, দুই পক্ষের মধ্যে দুই দফায় মারামারি হয়েছে। তখন মেহেদী হাসান নামে এক শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়। তার মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের মর্গে রাখা হয়েছে।

মন্তব্য / থেকে প্রত্যুত্তর দিন