ডার্ক মোড
Sunday, 19 May 2024
ePaper   
Logo
লিভ-ইন থাকাকালীন বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক, লারা দত্তের রঙিন জীবন

লিভ-ইন থাকাকালীন বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক, লারা দত্তের রঙিন জীবন

বিনোদন ডেস্ক

উত্তরপ্রদেশের গাজিয়াবাদের মেয়ে লারা দত্ত। ২০০০ সালের শুরুতেই মিস ইউনিভার্স খেতাব জিতে হৈ চৈ ফেলে দিয়েছিলেন যিনি। নিজের মুকুটে এই পালক যুক্ত হওয়ার পরে আর তাকে পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। কাজ করেছেন শাহরুখ, সালমান খানের মতো বড় বড় তারকাদের সঙ্গে।

২০০৩ সালে ‘আন্দাজ’ ছবি দিয়ে বলিউডে অভিষেক হয় লারার। বলিউডের পাশাপাশি একাধিক আঞ্চলিক সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন তিনি। পাশাপাশি খেলাধুলাতেও দক্ষ ছিলেন লারা। জাতীয় স্তরে বাস্কেট বলে অংশগ্রহণ করেছিলেন অভিনেত্রী।

এইসবই তো গেল লারার প্রফেশনাল ক্যারিয়ারের গল্প। ব্যক্তিজীবনেও নানা কারণে আলোচিত ছিলেন এই অভিনেত্রী। ক্যারিয়ার শুরুতেই সম্পর্কের কারণে একাধিকবার সংবাদের শিরোনাম হয়েছেন লারা।

দীর্ঘ ৯ বছর ভূটানিজ মডেল কেলি দোরজির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে ছিলেন অভিনেত্রী। বলিউডে ক্যারিয়ার শুরুর সময় থেকেই লিভ-ইনে ছিলেন লারা। আর সেই লিভ-ইন সম্পর্ক থাকাকালীনই অপর একটি সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন তিনি।

যেটা তার প্রেমিক জেনে ফেলার পরই বিচ্ছেদ ঘটে দুজনের মাঝে। এরপর ২০০৮ সালে বলিউড অভিনেতা দিনো মোরিয়ার সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান লারা। সেই প্রেমও বেশিদিন টেকেনি। ২০০৯ সালেই আলাদা হয়ে যান এই জুটি।

দু’বার ব্যর্থ প্রেমের পর গলফ খেলোয়াড় টাইগার উডসের সঙ্গেও লারার নাম জড়িয়ে পরে। যে সম্পর্ক নিয়েও কম জলঘোলা হয়নি। এরপর টেনিস খেলোয়াড় মহেশ ভূপতির সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান লারা৷ যিনি ছিলেন বিবাহিত।

বিবাহ বহির্ভূত সেই সম্পর্কে জড়িয়ে তার গলাতেই মালা দেন অভিনেত্রী। সে সময় এক সাক্ষাৎকারে মহেশের স্ত্রী মডেল শ্বেতা দাবি করেন, বিবাহবিচ্ছেদের আগেই লারাকে বিয়ে করেন শ্বেতা৷

যদিও সেই দাবিতে লারার বিয়েতে কোনো বাঁধা হয়নি। বরং মহেশ ভূপতির সঙ্গেই বর্তমানে সংসার করছেন এই নায়িকা। তাদের একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে।

মন্তব্য / থেকে প্রত্যুত্তর দিন