ডার্ক মোড
Thursday, 23 May 2024
ePaper   
Logo
জামালপুর সদর আসনে নৌকা-ঈগল প্রার্থীর পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন

জামালপুর সদর আসনে নৌকা-ঈগল প্রার্থীর পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন

জামালপুর প্রতিনিধি

জামালপুর সদর আসনের আ’লীগ (নৌকা) প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী (ঈগল) রেজাউল করিম রেজনুর পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

৬ জানুয়ারি দুপুরে তামালতলা আ’লীগের পুরাতন অফিসে রেজনু এবং সন্ধ্যায় বকুলতলা নতুন দলীয় কার্যালয়ে আবুল কালাম আজাদ পৃথক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন।

সংবাদ সম্মেলনে অভিন্ন অভিযোগ করে রেজনু বলেন, ঈগলের জনপ্রিয়তায় ইর্ষান্বিত হয়ে নৌকার প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ এবং মির্জা আজম এমপি’র মদদে আমার কর্মীবাহিনীর বিরুদ্বে মিথ্যা হয়রানিমূলক মামলা দিয়েছে।

এজেন্ট-কর্মীদের ভয়ভীতি প্রদর্শণ করা হচ্ছে। ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে যেতে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। আইন শৃঙ্খলা বাহিনী এবং প্রশাসনকে ব্যবহার করা হচ্ছে। আমি এর প্রতিবাদ জানাই। নির্বাচন সুষ্ঠু করতে প্রধানমন্ত্রী এবং ইসির হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

অপরদিকে নৌকার প্রার্থী আবুল কালাম আজাদও একই অভিযোগ তুলে সাংবাদিকদের বলেন-এবার দেশব্যাপী নৌকার গণজোয়ারে ইর্ষান্বিত হয়ে বিএনপি-জামাত এবং তাদের দোসররা একাট্রা হয়ে নির্বাচন বাঞ্চালের ষড়যন্ত্র করছে। ট্রেন-বাসে-বিভিন্ন স্থাপনায় আগুন সন্ত্রাস চালাচ্ছে।

এর নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, আমার নির্বাচনী এলাকায় নৌকার গণজোয়ার উঠেছে। নৌকা ঠেকাতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর সাথে জামাত-বিএনপি জোট বেধে নানা অপপ্রচার চালাচ্ছে। নৌকার নির্বাচনী অফিস ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ, মারধরসহ আহত করেছে। ঈগলের সাথে বিএনপি’র কর্মীরা নির্বাচন বর্জনের লিফলেট ছড়াচ্ছে। পুলিশ কয়েক হাজার লিফলেটসহ আটক করেছে। আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে অগ্নি সন্ত্রাস-নৈরাজ্য রোধে মামলা দায়ের করেছি।

কারোর প্রতি ঈর্ষান্বিত হয়ে কোন মামলা করিনি। পুলিশ বাদি হয়ে কিছু মামলা করেছে। এই মামলার সাথে আমার কোন নেতা-কর্মী জড়িত নন। এই অপপ্রচারের বিরুদ্ধে আজকের সাংবাদিক সম্মেলন। আইন শৃঙ্খলা এবং দেশের নৈরাজ্য বন্ধে প্রশাসনের কাজ অব্যাহত রাখা তাদের পবিত্র দায়িত্ব। তবে আমরা নির্দোষীর উপর কোন ধরণের অন্যায়-অবিচার প্রয়োগের পক্ষপাত নই। প্রতিপক্ষের অপপ্রচারকে নিন্দা-প্রতিবাদ জানাই।

মন্তব্য / থেকে প্রত্যুত্তর দিন