ডার্ক মোড
Sunday, 21 April 2024
ePaper   
Logo
সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপির গণমিছিল ও সমাবেশ

সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপির গণমিছিল ও সমাবেশ

সিলেট ব্যুরো

বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস সহ কেন্দ্রীয় শীর্ষ নেতৃবৃন্দের নিঃশর্ত মুক্তি দাবী, কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে হামলা ও ভাংচুরের প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপির উদ্যোগে আয়োজিত গণমিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) দুপুরে নগরী চৌহাট্টা পয়েন্টে মিছিল পরবর্তী সংক্ষিপ্ত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান বলেন, বিএনপির চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে গৃহন্তরীন করে, দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে দেশে ফিরতে না দিয়ে, মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস সহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দকে কারাবন্দি করে সরকার বিএনপিকে নেতা শুন্য করার পায়তারা করছে।

কিন্তু তারা জানে না যে, দেশের জনগন সরকারের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে এখন রাস্তায় নেমেছে। তাই ঝুলুম ও নির্যাতন করে জনতার এই আন্দোলনকে বন্ধ করা যাবে না। চলমান আন্দোলনের মাধ্যমেই সকল রাজবন্দিকে মুক্ত করে একটি নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকারের অধিনে অবাধ, সুষ্ট ও গ্রহনযোগ্য নির্বাচনের মাধ্যমে দেশে জনগনের সরকার প্রতিষ্ঠা করা হবে। জনগণের দাবী আদায় না করে আমরা ঘরে ফিরব না।

তিনি আরো বলেন, বিএনপির কর্মসূচিগুলোতে জনতার জোয়ার নামে। ধারাবাহিক শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির অংশ হিসেবে আমরা প্রতিনিয়তই রাজপথে প্রতিবাদ করে যাচ্ছি। দেশে যে স্বৈরতন্ত্র ও অপশক্তি বিদ্যমান রয়েছে, আমরা সেই অপশক্তিকে উৎখাত করার জন্য আন্দোলন করে যাচ্ছি। আওয়ামীলীগ দমন নিপিড়নের নামে চরম মানবাধিকার লঙ্ঘন করছে, যা দেশ-বিদেশে নিন্দনীয় হচ্ছে। এসব ঘটনায় এই দেশের জনগণ হিসেবে আমরাও লজ্জিত হচ্ছি। এর জন্য বাংলাদেশ দায়ী নয়, বাংলাদেশের জনগণ দায়ী নয়। দায়ী এই ফ্যাসিবাদী সরকার। ইনশাআল্লাহ অতিশীঘ্রই এই ফ্যাসিস্ট সরকারের পতন হবে।

সিলেট মহানগর বিএনপির আহবায়ক আব্দুল কাইয়ুম জালালি পংকির সভাপতিত্বে ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরীর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন- বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ড. সাখাওয়াত হাসান জীবন, সিলেট সিটি মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী, সিলেট মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব মিফতাহ্ সিদ্দিকী প্রমূখ।

মিছিলটি নগরীর রেজিষ্ট্রারী মাঠ থেকে শুরু হয়ে নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে চৌহাট্টা পয়েন্টে গিয়ে শেষ হয়। গণমিছিলে সিলেটে অবস্থানরত বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন উপজেলা, পৌর ও ওয়ার্ড এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য / থেকে প্রত্যুত্তর দিন