ডার্ক মোড
Sunday, 14 July 2024
ePaper   
Logo
লাফার্জহোলসিমের নতুন সিমেন্ট ব্র্যান্ড ‘সুপারক্রিট প্লাস’

লাফার্জহোলসিমের নতুন সিমেন্ট ব্র্যান্ড ‘সুপারক্রিট প্লাস’

নিজস্ব প্রতিবেদক

সুপারক্রিট প্লাস নামে নতুন ব্র্যান্ডের সিমেন্ট বাজারে এনেছে লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ। বর্ধিত শক্তির সাথে এটাই দেশের সেরা ফেয়ার ফেসিং সিমেন্ট। যেকোনো পোর্টল্যান্ড কম্পোজিট সিমেন্ট থেকে সুপারক্রিট প্লাস শতকরা ১৫-২০ ভাগ বেশি প্রাথমিক শক্তি অর্জন করে এবং এই সিমেন্ট ব্যবহারে অবকাঠামোতে ছিদ্র তৈরি হয় না।

সুপারক্রিট প্লাস সেরা ফেয়ার ফেস এর নিশ্চয়তা প্রদানের পাশাপাশি দীর্ঘমেয়াদী স্থায়িতও¡ নিশ্চিত করে। এই সিমেন্ট ব্যবহার করে অবকাঠামোর যে কোন ধরনের উন্নত নঁকশা করা সম্ভব এবং এর ফেয়ার ফেসিং এর অকৃত্রিম গঠন অবকাঠামোকে করে অনন্য। বাড়ীর ভিতর-বাহির, সাধারন কংক্রিট, স্লাব এর প্লাস্টার, বীম, কলাম সহ যেকোন আকাশচুম্বী দালান তৈরিতে এই সিমেন্ট ব্যবহার করা যাবে। বিওপিপি (বাই-অ্যাক্সিয়ালি অরিয়েন্টেড পলিপ্রপিলিন) ব্যাগ এই সিমেন্টের টেম্পার ও আদ্রতা ঠিক রাখবে।

(৬ নভেম্বর) রোববার রাজধানীর একটি হোটেলে নতুন এই সিমেন্ট ব্র্যান্ডের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে কোম্পানিটির প্রধান নির্বাহি রাজেশ সুরানা ভার্চুয়ালি যোগ দেন এবং এর উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে এই পণ্যের বিশেষত্ব তুলে ধরেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. রাকিব আহসান এবং আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন স্থপতি অধ্যাপক রফিক আজম। অনুষ্ঠানে কোম্পানিটির প্রায় ২০০ জন বিপননকারী এবং দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা প্রকৌশলী ও স্থপতিরা অংশ নেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কোম্পানিটির প্রধান নির্বাহি বলেন, “সুপারক্রিট প্লাস ফেয়ার ফেস অবকাঠামোর জন্য একটি অদ্বিতীয়, টেকসই এবং উদ্ভাবনী পণ্য। কোন ধরনের পরিবর্তন ছাড়াই এটি অবকাঠামোর সৌন্দর্যের একটি নির্দিষ্ট অনুভূতি বজায় রাখে। ফেয়ার ফেস কংক্রিটের একটি শান্ত ও কোমল আভিজাত্য রয়েছে। আমরা নিশ্চিত যে গ্রাহকেরা শক্তি, স্থায়িত্ব ও আভিজাত্যের প্রতীক আমাদের নতুন এই উদ্ভাবনী পণ্য গ্রহন করবেন।”

‘হোলসিম ওয়াটার প্রোটেক্ট’ এবং ‘হোলসিম শক্তি’র পরে ‘সুপারক্রিট প্লাস’ এর উদ্বোধন কোম্পানির পণ্য বৈচিত্রে নতুন মাত্রা যোগ করেছে এবং গ্রাহকেরাও নিজেদের পছন্দ ও প্রয়োজন অনুযায়ী সিমেন্ট ব্র্যান্ড বাছাই করার সুযোগ পাবেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কোম্পানিটির সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং ডিরেক্টর গাজী মাহফুজুর রহমান, চীফ করপোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার ও এইচআর ডিরেক্টর আসিফ ভূইয়া, চীফ ফাইন্যান্সিয়াল অফিসার মোহাম্মদ ইকবাল চৌধুরী এবং প্রকিওরমেন্ট ও লজিস্টিকস ডিরেক্টর লাকমাল সুরাঞ্জান ফনসেকা সহ উর্ধ্বতন কর্মকতারা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য / থেকে প্রত্যুত্তর দিন