ডার্ক মোড
Monday, 17 June 2024
ePaper   
Logo
আমতলীতে স্যালাইনের জন্য হাহাকার

আমতলীতে স্যালাইনের জন্য হাহাকার

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি

আমতলী উপজেলায় স্যালাইনের জন্য হাহাকার সৃষ্টি হয়েছে। স্যালাইন না পেয়ে দিশেহারা হয়ে পরেছে ডেঙ্গুসহ অন্যান্য রোগে আক্রান্ত রোগী ও ও তাদের স্বজনরা। দ্রুত স্যালাইন সরবরাহের দাবী জানিয়েছেন তারা। ঔষধ ব্যবসায়ীদের অভিযোগ স্যালাইন উৎপাদনকারী কোম্পানীগুলো স্যালাইন সরবরাহ বন্ধ রেখেছে। কোম্পানীর প্রতিনিধিদের দাবী চাহিদা অনুযায়ী স্যালাইন উৎপাদন হচ্ছে না। ফলে বাজারে স্যালাইন সরবরাহ বন্ধ রয়েছে।

জানাগেছে, গত তিন মাস ধরে আমতলী উপজেলায় ডেঙ্গু রোগের প্রার্দুভাব দেখা দেয়। গত জুলাই, আগষ্ট ও সেপ্টেম্বর মাসে ৪ ’শ রোগী আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন। এছাড়াও অন্তত কয়েক হাজার রোগী ডেঙ্গুর লক্ষণ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি না হয়ে চিকিৎসকদের পরামর্শে বাড়ী বসে চিকিৎসা নিয়েছেন বলে একটি সুত্রে জানাগেছে। ডেঙ্গু রোগ বৃদ্ধির সাথে সাথে স্যালাইনের সংঙ্কট দেখা দেয়।

গত এক মাস ধরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং গত দুই মাস ধরে উপজেলার ফার্মেসীগুলোতে সকল ধরনের স্যালাইন সরবরাহ বন্ধ রয়েছে। এতে ভোগান্তিতে পরেছে ডেঙ্গু রোগীসহ অন্যান্য রোগে আক্রান্ত রোগী ও তাদের স্বজনরা। ঔষুধ ব্যবসায়ীদের অভিযোগ স্যালাইন উৎপাদনকারী কোম্পানীগুলো স্যালাইন সরবরাহ বন্ধ রেখেছে।

ফলে আমতলীতে স্যালাইনের তীব্র সংঙ্কট দেখা দিয়েছে। অপর দিকে উৎপাদনকারী কোম্পানীর প্রতিনিধিদের দাবী চাহিদা অনুযায়ী স্যালাইন উৎপাদন হচ্ছে না। ফলে বাজারে স্যালাইন সরবরাহ নেই। দ্রুত স্যালাইন সরবরাহের দাবী জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা। এছাড়াও কিছু ফার্মেসীতে স্যালাইন থাকলেও তারা গোপনে অধিক মুল্যে বিক্রি করছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

বৃহস্পতিবার আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও শহরের বিভিন্ন ফার্মেসী ঘুরে দেখা গেছে, ফার্মেসীতে স্যালাইন নেই। রোগীর স্বজনরা ফার্মেসীতে স্যালাইন নিতে এসে ফিরে যাচ্ছেন।
আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ডেঙ্গু রোগী রাসেল হাওলাদারের বড় ভাই সোহেল রানা বলেন, হাসপাতাল ও উপজেলা শহরের অধিকাংশ ফার্মেসীতে স্যালাইন নেই। একটি ফার্মেসীতে স্যালাইন পেয়েছি, তা ৮৭ টাকার স্যালাইন ২০০ টাকায় ক্রয় করেছি।

আমতলী উপজেলা ঔষধ ব্যবসায়ী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির বলেন, স্যালাইন উৎপাদনকারী কোম্পানীগুলোর প্রতিনিধিদের বারবার তাগাদা দেয়া সত্তে¡ও তারা স্যালাইন সরবরাহ করছেন না।

অপসো স্যালাইন কোম্পানী লিমিটেড’র প্রতিনিধি সাইফুল ইসলাম বলেন, চাহিদা অনুসারে স্যালাইন উৎপাদন হচ্ছে না। ফলে বাজারে স্যালাইন সরবরাহ করছে না কোম্পানী। আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ জায়েদ আলম ইরাম বলেন, হাসপাতালে স্যালাইন নেই। স্যালাইন চেয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে চিঠি দেয়া হয়েছে।

আমতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আশরাফুল আলম বলেন, স্যালাইন ক্রয়ের জন্য উপজেলা পরিষদ স্বাস্থ্য বিভাগকে নগদ ৫০ হাজার টাকা বরাদ্দ দিয়েছি। খোজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মন্তব্য / থেকে প্রত্যুত্তর দিন